গণতন্ত্রের কথা বললেও স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে আওয়ামীলীগ : ফখরুল

0
310

চ্যানেল বোয়ালখালী ডেস্ক :
২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর দেশের রাজনীতির ইতিহাসে সবচেয়ে কলঙ্কময় দিন। এদিন গণতন্ত্র ধ্বংস করে একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য ভোট ডাকাতির নির্বাচন  অনুষ্ঠিত হয়। এমন অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে সামনে গগণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে এ অভিযোগ করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সরকার মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে আওয়ামীলীগ। সরকার গোটা দেশকে শ্বাসরুদ্ধকর পরিবেশ ও কারাগার পরিনত করেছে।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, করোনা আসার পর থেকে দুর্নীতি করে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙ্গে ভেঙ্গে দিয়ে জনগণকে বিপন্ন করেছে। আজকের সমাবেশ ভঙ্গ করতে রাস্তায় নেতাকর্মীদের বাধা দেওয়া হয়।

দলমত নির্বিশেষে সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করার আহ্বান জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

দেশের গণতন্ত্র নিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগ গগতন্ত্রে কখনো বিশ্বাস করেনি। মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও তারা সরসময় স্বৈরাচারে বিশ্বাসী। সব সময় স্বৈরতন্ত্রকে সহায়তা করেছে।

এ সময় বিএনপি নেতারা সরকারি বিভিন্ন খাতের অনিয়মের কড়া সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমাদের অর্থনীতিকে ধ্বংস করেছে। বাংলাদেশে একটি লুটপাটের রাজস্থ কায়েম করেছে। ব্যাংকগুলোকে লুট করে ব্যাংকিং ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে।

এছাড়াও বিএনপি কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে দেশের বিভিন্ন স্থানে সভা সমাবেশ করেছে দলটির নেতাকর্মীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here